TouchDroid দিয়ে দুই মিনিটেই ফোনের টাচস্ক্রিনকে বানিয়ে ফেলুন পিসির মাউস!


কম্পিউটার মাউসের উদ্ভব প্রথম হয় ১৯৬৪ সালে ডগলাস এঙ্গেলবার্টের হাত ধরে। কম্পিউটারের উপর ইউজারের কন্ট্রোল বাড়ানোর উদ্দেশ্যে বানানো কাঠের মাউসটিতে বাটন ছিল একটি।

world's first computer mouse in 1964

আর বর্তমান মাউসগুলোর অবস্থা হল এমনঃ

modern computer mouse with lots of button

যাই হোক।

প্রতিদিনের অপরিহার্য এই জিনিসটি একবার বিগড়ে গেলেই বুঝা যায় মাউসের অবদান কত বিশাল। কিন্তু এটি ঠিক করা বা নতুন আরেকটি কেনার আগ পর্যন্ত তো কম্পিউটার ব্যবহার করাই লাগে। তাহলে উপায়?

হাতের ফোনটিকেই চটজলদি বানিয়ে ফেলুন মাউস ইমুলেটর! ল্যাপটপের টাচপ্যাডগুলো তো একপ্রকার ফোনের মতই। টাচস্ক্রিন ব্যবহার করে মাউস পয়েন্টার ইজিলি কন্ট্রোল করা সম্ভব। আজকে আমি সেটাই করে দেখাবো। চলুন কাজে নেমে পড়ি!

নোটঃ যদিও ট্রিকবিডিতে পিসিকে ফোন দিয়ে কন্ট্রোল করার গাইড দেয়া আছে, ওগুলো অ্যান্ডভান্সড টপিক, এই পোস্টে শুধু ফোনকে মাউস হিসেবে ব্যবহার করার উপায় দেখানো হয়েছে। আর ট্রিকটি কেবল অ্যান্ড্রয়েডের জন্য, আইফোনে এটি কাজ করবে না। আইফোন ইউজারদের এসব অবশ্য লাগেও না 😛

TouchDroid দিয়ে ফোনকে পিসির মাউস হিসেবে ব্যবহারের কার্যপ্রণালী

পিসির জন্য ডাউনলোড করুনঃ TouchServer

ফোনের জন্য ডাউনলোড করুনঃ TouchDroid

ইন্টারনেট কানেকশনঃ পিসি ও ফোন উভয়কে একই ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কের মধ্যে থাকতে হবে।

প্রথমে ফাইলদু’টি ডাউনলোড করে নিন। TouchDroid.apk ফাইলটি ফোনে ইনস্টল করুন। আর পিসিতে TouchServer.zip এক্সট্র্যাক্ট করুন।

জিপ ফাইলের ভেতরে UI.exe ফাইলটি রান করুন।

touchserver setup

তারপর মোবাইলে TouchDroid ওপেন করলেই অটোমেটিক পিসির সাথে কানেক্ট হয়ে যাবে, আর মাউস কন্ট্রোল করার ইন্টারফেস চলে আসবে।

touchdroid setup

উপরের অংশ স্ক্রলিং, লেফট ও রাইট ক্লিক, আর নিচের অংশ পয়েন্টার নাড়াচাড়া করার জন্য ব্যবহার করুন।

using touchdroid as a mouse

নোটঃ পিসিতে মাউস না থাকলে মোবাইলে জিপ এক্সট্র্যাক্ট করে মোবাইলটি পিসিতে কানেক্ট করুন। তারপর পিসি থেকে মোবাইলের স্টোরেজে ঢুকে UI.exe রান করলেই কাজ হয়ে যাবে।

ফোন কিভাবে মাউস হিসেবে কাজ করবে তা বুঝার সুবিধার্থে একটি ভিডিও দিচ্ছিঃ

ব্যস! এইতো হয়ে গেলো touchdroid দিয়ে সহজেই ফোন দিয়ে পিসির মাউস পয়েন্টার কন্ট্রোল করার কৌশল।

অবশ্যই ব্যাপারটা তেমন প্র্যাক্টিক্যাল না, ছোট স্ক্রিনে বড় মনিটর কন্ট্রোল করা কষ্টসাধ্য। ট্যাব দিয়ে হয়তো আরো স্বাচ্ছ্যন্দ পাওয়া সম্ভব।

কিন্তু টেকনোলজি সচেতন হিসেবে আপনার অবশ্যই এসব জেনে রাখা উচিত, জরুরী প্রয়োজনে এসব কৌশল বেশ কাজে দেয়।

আজকের পোস্টটা ছোট হয়ে গেল, আসলে এত সহজভাবে সিস্টেমটি বানিয়েছে যে টিউটোরিয়াল ইচ্ছা করলেও বড় করার সুযোগ নেই। আশা করি এই ছোট্ট পোস্ট হয়তো একদিন আপনার বড় কোনো উপকার করবে।

ভালো থাকবেন, ভালো রাখবেন 💗



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *