Tricks

ReminiAi এর ফিচার ব্যবহার করুন টেলিগ্রাম দিয়ে ফ্রিতেই 🚀🚀



টেলিগ্রামে ইদানিং ফিচার দিন দিন খুবই দ্রুত বাড়ছে। আগের থেকে টেলিগ্রাম bot গুলো অনেক স্ট্রং হয়ে যাচ্ছে।সেই সাথে টেলিগ্রাম ডিসেন্ট্রালাইজড প্ল্যাটফর্মগুলোর সাথেও ইন্টিগ্রেট করছে।Ai এখন আগের চাইতে বেশি শক্তিশালী।রাইটিং,ছবি আঁকা, গ্রাফিক্স, অ্যানিমেশনে এআই ব্যবহার করা যাচ্ছে।

কখনো কখনো ছবি তোলার পর সেগুলো ঝাপসা হয়ে যায়, আবার ইন্টারনেট থেকে কোথাও ছবি সংগ্রহ করলে নানা কারনে সেটির কোয়ালিটি ডাউনগ্রেড হতে পারে।ফলে ছবিতে ডিটেইল ঠিক থাকেনা,কালার ভালো আসেনা, ঝাপসা হয়ে যায়। দ্বিতীয়বার সেই ছবি সংগ্রহ করা বা ক্যাপচার করার সুযোগ নাও থাকতে পারে।

ছবি এজন্য enhance করার বেস্ট একটি মাধ্যম হচ্ছে এআই এর সাহায্য নেওয়া।Ai এর উন্নতির ফলে এখন অনায়াসেই ছবি 2x,3x করে কোয়ালিটি বাড়ানো যায়।

তবে এসব এআই সাধারনত ফ্রি হয়না। কখনো বিরক্তিকর বিজ্ঞাপন দেখতে হয়, কখনো ছবিতে watermark থেকে যে দেখা যায় সেটি ছবির স্টোরিটেলিংকে ইফেক্ট করছে।আবার সবার হয়তো এসব সাবস্ক্রিপশন নেয়ার ক্যাপাবিলিটি নেই।

আজকে পরিচিতি করতে চলেছি একটি শক্তিশালী telegram bot দিয়ে।এর মাধ্যমে আপনারা অতি সহজেই টেলিগ্রাম দিয়েই ছবির কোয়ালিটি বুস্ট করতে পারবেন। তাছাড়া রয়েছে একাধিক Enhance mode যেটি দিয়ে আপনারা ইচ্ছামতো ছবিটি সিলেক্ট করতে পারবেন।

এই টেলিগ্রাম bot এর নাম Remini pro free


(টেলিগ্রাম bot টির লিংক এখানে ক্লিক করুন 📻)

প্রথমে আসা যাক এটির ফিচারগুলো নিয়ে।এই bot এ বেশ কিছু ভালো ভালো ফিচার রয়েছে।এর মধ্যে আছে

•ছবি enhance করা ( মাল্টিপল কোয়ালিটিতে)
•ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড রিমোভ করা বা png ইমেজ জেনারেট করা
•বিভিন্ন ফিল্টার
•ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার করা
•ইন্টিগ্রেটেড bot হ‌ওয়ায় এখানে লিংক রিডাইরেকশন নেই।অর্থাৎ কোনো ধরনের webpage এ যেতে হবেনা।
•photo to anime
•এটির কোনো লিমিটেশন নেই। অর্থাৎ এমন না আপনি শুধু কয়েকটি ছবিই পারবেন।


প্রথমে আপনারা লিংকে ক্লিক করে টেলিগ্রাম বটটি চালু করে নিবেন।এজন্য start কমান্ড এ ক্লিক করবেন।

এরপর আমি একটি ছবি সেন্ড করলাম। সেখানে দেখাচ্ছে তাদের condition সেটি হচ্ছে তাদের অফিসিয়াল টেলিগ্রাম গ্রুপে জয়েন থাকা লাগবে।এজন্য প্রথমে move to channel এ গিয়ে জয়েন দিবেন এবং এর পরেরবার check দিবেন। চেক দেয়ার পর এটি অটোমেটিক ভ্যানিশ হয়ে যাবে।তার আগে অবশ্য‌ই জয়েন হতে হবে।

দেখুন এখানে আপনাকে প্রথম option page দেখাচ্ছে। সেখানে দেখতে পাচ্ছেন enhance,filter,blur সহ বেশ কয়েকটি অপশন রয়েছে।এছাড়া এটির yellow arrow দেয়া অপশনে ক্লিক করলে দেখবেন আরো বেশ কিছু অপশন চলে আসছে।

দেখুন এক্সট্রা বেশ কিছু অপশন আবার চলে আসছে।আমি উদাহরন স্বরুপ দেখানোর জন্য enhance অপশনে ক্লিক করলাম।


দেখুন আমার ফলাফল একটির পর একটি জেনারেট হচ্ছে। অর্থাৎ আমার এক কমান্ড দিয়েই মাল্টিপল ছবি জেনারেট হচ্ছে যেগুলো প্রতিটি তার নিজস্ব অ্যালগরিদম দিয়ে তৈরি।

তো আজ এই পর্যন্তই।আশা করি আপনাদের উপকারে আসবে। পোস্টটি মনযোগ সহকারে পড়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ। দেখা হবে নতুন কোনো পোস্ট নিয়ে।



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button