ওয়েবসাইট ডেভলপমেন্ট কি এবং তা কত প্রকার বিস্তারিত জানুন এই পোস্টে


আসসালামুআলাইকুম

হ্যালো বন্ধুরা, কেমন আছেন সবাই? আশা করি সকলেই
আল্লাহর রহমতে ভালো আছেন, আর ভালো না থাকলে তো
ভালো লাগার ওয়েবসাইট TrickBD আছেই। যেখান
থেকে আমরা নিত্যনতুন ট্রিক পেয়ে যাই।

তো যাইহোক আজকে যে বিষয় নিয়ে পোষ্ট করতে
যাচ্ছি তা আপনারা ইতিমধ্যে উপরিউক্ত টাইটেল দেখে
জেনে গেছেন।

হুম বন্ধুরা আজকে আমি ওয়েবসাইট ডেভলপমেন্ট কি এবং তা
কত প্রকার সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

বর্তমান ইন্টারনেটের যুগ। ইন্টারনেটের ব্যপক ব্যবহারের
ফলে মানুষের মধ্যে যোগাযোগ যেমন সহজ হয়েছে
তেমনি তৈরি হয়েছে নতুন নতুন কর্মক্ষেত্র। মানুষ এখন
ইন্টারনেটে নিজের ক্যারিয়ার গড়ছে।
ইন্টারনেটে নিজের ক্যারিয়ার গড়ার জন্য অনেক পেশা
রয়েছে। তার মধ্যে হতে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ
একটি পেশা। আজকে আমরা সে সম্পর্কে বিস্তারিত
জানবো।

ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কি

প্রথমত ওয়েব ডেভেলপমেন্ট হলো একটি ওয়েব সাইটের
বিকাশ সাধন করা।অর্থাৎ প্রোগ্রামিং বা কোডিং
এর মাধ্যমে একটি ওয়েব সাইট কে পুরোপুরি
ইস্টাবলিশ্ট করা। এর জন্য প্রোগ্রামারদের কিছু
কোডিং ল্যাংগুয়েজে পারদর্শী হতে হয়। যেমন
এইচ টি এম এল একটি ওয়েব সাইটের স্ট্রাকচার
তৈরি করতে সাহায্য করে। সি এস এস ওয়েব সাইট
কে ডিজাইন করতে সাহায্য করে এবং জাভাস্ক্রিপ্ট
একটি ওয়েব সাইট কে প্রাণবন্ত করে তুলে।

আপনারা যখন ইন্টারনেটে কোন কিছু জানার জন্য
সার্চ করেন।তখন অনেকে ওয়েব সাইট আপনাদের
সামনে চলে আসে। সেগুলো কোন না কোন ওয়েব ডেভেলপারদের
দ্বারা তৈরি। তারা সেগুলো প্রোগ্রামিং বা কোডিং করে
তৈরি করে। একজন ওয়েব ডেভলপার শুধু কোডিং বা
প্রোগ্রামিং দিয়ে ওয়েব সাইট তৈরিই করেন না এছাড়াও
ডেটাবেস প্রস্তুত করেন, ওয়েব বেইসড সফটওয়্যার তৈরি করেন
এবং ডেটাবেস ম্যানেজমেন্ট করেন।অর্থাৎ একজন ওয়েব ডেভলপার
ওয়েব সাইটের রূপরেখা তৈরি করেন এবং ডিজাইন ও
বিকাশ সাধন করেন।
একজন ওয়েব ডেভলপার হিসেবে নিম্নক্ত প্রোগ্রামিং
ভাষাসমূহ শিখা উচিৎ।
HTML
CSS
PHP
JavaScript
ওয়েব ডেভলপার প্রধানত তিন প্রকারের হয়ে থাকে।

  1. ফ্রন্ট ইন্ড ডেভলপার
  2. ব্যাক ইন্ড ডেভলপার
  3. ফুলস্টাক ডেভলপার

ফ্রন্ট ইন্ড ডেভলপার

এই ধরনের প্রোগ্রামাররা HTML,CSS,JavaScript
এর মতো প্রোগ্রামিং ভাষাসমূহের দ্বারা ওয়েবপেজ ডিজাইন
করে থাকে। এদেরকে ওয়েব ডিজাইনারও বলা হয়,যারা
ওয়েব সাইট ডিজাইন করে থাকে। ফ্রন্ট ইন্ড ডেভলপমেন্ট কে
ক্লাইন্ট সাইড ডেভলপারও বলা হয়ে থাকে।
একজন ফ্রন্ট ইন্ড ডেভলপার ওয়েবসাইটের ডিজাইন
এবং থিম তৈরির জন্য কোডিং করে থাকে। আপনি যখন
আপনার এড্রেস বারে কোন ওয়েবসাইটের ঠিকানা লেখেন
তখন যে ওয়েব সাইট টি আপনার চোখের সামনে ভেসে
ওঠে ওই সাইটের থিম ফ্রন্ট ইন্ড ডেভলপারদের দ্বারা
তৈরি।

ব্যাক ইন্ড ডেভলপার

ব্যাক ইন্ড ডেভলপমেন্ট ওয়েবসাইটকে রান
করতে ব্যবহৃত হয়।ব্যাক ইন্ড ডেভলপমেন্টকে ওয়েবসাইটের
ব্যাকবন বা মেরুদণ্ড বলা হয়।এই ধরনের ডেভলপমেন্টে

ব্যবহারকারিরা কোন ইন্টারফেস দেখতে পায় না।
কিন্তু এখানে সমস্ত সাইটের কোড করা হয়।
যা ওয়েবসাইটকে রান করতে সাহায্য করে।
ব্যাক ইন্ডে ওয়েবসাইটের অনেক কঠিন এবং জটিল
কাজ করা হয়।ব্যাক ইন্ডের দ্বারা ওয়েবসাইটের
সমস্ত ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট করা হয়।কোন ওয়েবসাইট
তৈরি করার জন্য দুই ধরনের লোকের প্রয়োজন হয়।ওয়েবসাইট
ডিজাইনার এবং ওয়েব সাইট ডেভলপার।
ওয়েবসাইট ডেভলপাররা ব্যাক ইন্ড ডেভলপমেন্টের
কাজ করে থাকে। অর্থাৎ এই ধরনের ডেভলপাররা
সাইটের ফাংশনালিটি কোডিং এর উপর কাজ করে।
এবং ওয়েব সাইট কে স্মূথলি রান করায়।
যদি কেউ ওয়েবসাইটে কোন পিক আপলোড করে
তখন তার ম্যানেজমেন্ট ওয়েব ডেভলপাররা করে।

এই ধরনের ডেভলপাররা কাজ করার জন্য PHP, JAVA,
Ruby, Python,.Net এই ধরনের প্রোগ্রামিং ভাষা
ব্যবহার করে থাকে।

ফুলস্টাক ডেভলপার

এই ধরনের ডেভলপাররা ফ্রন্ট ইন্ড ডেভলপমেন্ট
এবং ব্যাক ইন্ড ডেভলপমেন্ট উভয় ধরনের কাজ করে।
অর্থাৎ এই ধরনের ডেভলপাররা ফ্রন্ট ইন্ড ডেভলপমেন্টের
ভাষা যেমন HTML,CSS,JavaScript এবং ব্যাক ইন্ড
ডেভেলপমেন্টের ভাষা PHP, Java,.Net ইত্যাদি শিখে
থাকে। ব্যাক ইন্ড ডেভলপাররা ওয়েব ডিজাইনিং করার
সাথে সাথে Database, Cache,Server, API ইত্যাদি নিয়েও কাজ
করে।



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *