Tricks

আপনার সর্বজনিন পেনশনের টাকা জমা করুন আপনার মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যেমে কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই।


بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَنِ الرَّحِيم

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ।

প্রিয় ট্রিকবিডি বাসি কেমন আছেন সবাই ? আশা করি মহান আল্লাহ তা’আলার অশেষ রহমতে অনেক ভাল আছেন।আপনাদের দোয়া ও ভালবাসায় আমিও অনেক ভাল আছি।

আজকে আলোচনা করবো কিভাবে সার্বজনীন পেনশনের মাসিক চাদা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পরিষদ করবেন আপনার নিজের মোবাইল দিয়েই কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই।

বন্ধুরা আমরা সবাই জানি বাংলাদেশ সরকার সকলের সুবিধার জন্য ১৮ বয়স হতে ৫০ বয়স পর্যন্ত সকল পেশার মানুষদের জন্য ১০ বছর মেয়াদী সর্বজনীন পেনশন স্কীম একাউন্ট চালু করেছেন।আর এই পেনশন স্কীমটি আপনি আপনার নির্ধারিত সময়ে আপনার জমাকৃত টাকা গুলো কয়েক গুন লাভ বা মুনাফা অর্জন করতে পারবেন।সরকারি চাকরিজীবী,প্রবাসী,বেসরকারি চাকরিজীবি প্রায় সকল পেশার মানুষ এই সর্বজনীন পেনশন চালু করতে পারবেন।আর এই সর্বজনীন পেনশনের টাকা আপনি মাসিক কিস্তি হিসেবে জমা করতে পারবেন।

অনেকেই পেনশন স্ক্রীম টাকা জমা দেওয়ার জন্য নিজ নিজ ইউপি/অনলাইনের দোকানে গিয়ে মাসিক টাকা জমা করেন যা আপনার খরচ কিছুটা হলেও বাড়িয়ে তুলে।তাই আজকে আমি আপনাদের দেখাবো কিভাবে আপনি আপনার মোবাইলের মাধ্যমে আপনার সর্বজনীন পেনশন মাসিক টাকা জমা করবেন কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই।
কিভাবে সর্বজনীন পেনশনের টাকা পেমেন্ট করবেন চলুন তাহলে দেখে নেওয়া যাক।

প্রথমে এই লিংকে ক্লিক করুন Upension.Gov.Bd

ওয়েবসােইটটিতে প্রবেশ করার পর লগইন অপশনে ক্লিক করুন।

এরপর আপনার আইডি নং ও পাসওয়ার্ড দিন এবং এইখানে যে ক্যাপচা কোড দেখানো হচ্ছে তা নিচে লিখুন।

এরপর ওয়েবসাটে লগিন হওয়ার পর থ্রী-ডট বা অপশনে ক্লিক করুন


এরপর চাঁদা পরিষদ করুন এই অপশনে ক্লিক করুন

এখন আপনি কত মাসের টাকা জমা করে রাখতে চান তা সিলেক্ট করুন। যেহেতু আমি এক মাসের টাকা জমা করবো তাই চাঁদার সংখ্যা ১ সিলেক্ট করে নিলাম এবং পেমেন্ট করুন এই অপশনে ক্লিক করলাম।

এরপর পেমেন্টের জন্য রিকুয়েষ্ট আসলে পেমেন্ট করতে চাই এই অপশনে ক্লিক করুন।

এখন পেমেন্টের ধরন আসছে যেহেতু আমরা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে টাকা জমা করবো তাই সোনালি ব্যাংক অপশনে ক্লিক করে নিবো।

এরপর Mobail Banking এই লেখাটিতে ক্লিক করে নিন।

দেখুন এইখানে অনেক গুলি মোবাইল ব্যাংকিং সিস্টেম দেখাচ্ছে। এইখান থেকে আপনি যে মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে টাকা জমা করে নিবেন ঐ ব্যাংকিং এ ক্লিক করে নিবেন।আমি বিকাশের মাধ্যেম টাকা পেমেন্ট করবো তাই আমি বিকাশ সিলেক্ট করলাম।

এরপর আমার মাসের টাকা ও ফি সহ একটি মেসেজ আসবে।এই মেসেজ দেখার পর কনফার্ম এ ক্লিক করবেন।

সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে Pay With BKash এই লেখাটিতে ক্লিক করে নিবেন।

আপনার বিকাশ একাউন্ট নাম্বার দিয়ে কনফার্মে ক্লিক করবেন

আপনার বিকাশে একটি ভেরিফাই মেসেজ আসবে ওই মেসেজের পাঠানো কোডটি এই ভেরিফাই বক্সে লিখে কনফার্ম করবেন।

এরপর আপনার বিকাশের পিন লিখে কনফার্ম করে দিবেন।

ব্যাস শেষ। দেখুন আমার এই মাসের টাকাটি খুব সহজেই জমা হয়ে গিয়েছে।এখন আপনি চাইলে এই জমাকৃত টাকার রশিদ ডাউনলোড করতে পারবেন।সেজন্য চাঁদা পরিষদ বিবরনে ক্লিক করুন।

ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করে আপনার জমাকৃত টাকার বিবরন দেখুন।

দেখুন কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই আমি সর্বজনিন পেনশনের টাকাটি জমা করে দিয়েছি।আপনারাও আমার এই পোস্টটি দেখে আপনার পেনশন একাউন্টটির টাকা জমা করতে পারবেন।

পরিশেষে আর কথা না বাড়িয়ে আজ এইখানেই বিদায় নিচ্ছি আমি

সোহেল আরমান রাজু

আমার সাথে যেকোন প্রয়োজনে যোগাযোগ করতে পারবেন Facebook – Instagram – My Telegram Channel

⚠ পোস্টের কোন অংশে ভুলক্রটি হলে সবাই ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন ।

সবাই ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন ও নিয়মিতো ট্রিকবিডির সাথেই থাকুন এই প্রত্যাশায় বিদায় নিচ্ছি,ধন্যবাদ

আল্লাহ হাফেজ



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button