আইপি এড্রেস এর সংঙ্গা এবং এর সর্ম্পকে বিস্তরিত আলোচনা


Public IP address ইন্টারনেটের সকল জায়গায় প্রদর্শিত হয়। আপনার local IP address টি আপনার ডিভাইসটিকে তার নেটওয়ার্কে উপস্থাপন করে এবং আপনার Public IP address ইন্টারনেটের কাছে আপনার রিকোয়েস্টের রিপ্রেজেন্ট করে।

এছাড়া আইপি অ্যাড্রেস আরো দুই ধরনের রয়েছে: এগুলো হলো, Dynamic IP address এবং Static IP address। চলুন তবে, এবার Dynamic IP address এবং Static IP address সম্পর্কে কিছুটা আলোচনা করা যাক।

Dynamic vs Static IP address

 

আপনার আইপি অ্যাড্রেস Dynamic IP অথবা Static IP হতে পারে। আপনি যদি আপনার বাসায় ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ নিতে চান, তবে অবশ্যই Dynamic IP address এবং Static IP address এর কথা শুনে থাকবেন। চলুন তবে, আপনাকে এবার Dynamic vs Static IP address সম্পর্কে কিছুটা ধারনা দেওয়া যাক।

Static IP address হল আপনাকে দেওয়া একটি নির্দিষ্ট আইপি অ্যাড্রেস, যে আইপি অ্যাড্রেস টি ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় কখনও পরিবর্তন হবে না। আপনি যখন একটি ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট নিলেন, তখন আপনারা ISP আপনার রাউটারের একটি আইপি অ্যাড্রেস বরাদ্দ করে দেয়। এক্ষেত্রে আপনি যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, তখন আপনার আইপি অ্যাড্রেস কখনো পরিবর্তিত হয় না।

Static IP address গুলো সবসময় ব্যবহার করা হয় কোন ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে, কেননা যেহেতু তাদের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলো সর্বদা নির্ভরযোগ্য-ভাবে অ্যাক্সেস-যোগ্য হতে হবে।

অন্যদিকে, Dynamic IP address হল সাময়িকভাবে প্রদান করা আইপি অ্যাড্রেস। ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় আপনার আইএসপি আপনাকে যদি কিছুক্ষণ অথবা কয়েকদিন পর পর একটি করে নতুন আইপি দিয়ে থাকে, তবে এটিকে আমরা Dynamic IP address বলবো। যেখানে ইন্টারনেট ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আপনার আইপি অ্যাড্রেস বার বার পরিবর্তিত হতে পারে। অর্থাৎ, ডায়ানামিক আইপি অ্যাড্রেস কে আমরা পরিবর্তনশীল আইপি ঠিকানা ও বলতে পারি।

কিন্তু, আপনার বাড়ির আইপি অ্যাড্রেস গুলো কখনো একই থাকতে হবে না। কেননা, আপনি যেহেতু ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন, কিন্তু আপনার যখন ইন্টারনেটে প্রবেশ করা প্রয়োজন, তখনই IP Address এর প্রয়োজন পড়ছে এবং সে সময়ে থাকা ডায়নামিক আইপি অ্যাড্রেস দিয়ে ইন্টারনেটে তথ্য আদান-প্রদান হতে পারবে। তবে, বাড়িতে ও Dynamic IP ব্যবহার করে ইন্টারনেট ব্যবহারে কিছু কিছু সার্ভিসে সমস্যা হতে পারে।

আসলে আইপি অ্যাড্রেস এর কাজ কি?

 

আইপি অ্যাড্রেস মূল কাজ হলো: নেটওয়ার্ক জুড়ে থাকা সমস্ত ডিভাইসগুলোর মধ্যে সঠিক ডিভাইসে তথ্য পাঠানো এবং গ্রহণ করা। IP ঠিকানা অনন্যভাবে ইন্টারনেটে প্রতিটি ডিভাইস সনাক্ত করে; যেখানে একটি ব্যতীত অন্য একটি ডিভাইসে যোগাযোগ করা সম্ভব নয়। আইপি অ্যাড্রেস কম্পিউটিং ডিভাইসগুলো কে (যেমন পিসি, মোবাইল, ট্যাবলেট, স্মার্ট ওয়াচ ইত্যাদি) এবং ওয়েবসাইটগুলোকে তার গন্তব্যে সঙ্গে যোগাযোগ করার ব্যবস্থা করে দেয় এবং ওয়েবসাইটগুলোকে এটি জানতে দেয়, ওয়েবসাইটটিতে কে কানেক্ট হচ্ছে।

 

 

আইপি ঠিকানার কারণে আপনি আপনার অবস্থানের ভিত্তিতে বিভিন্ন পরিষেবা উপভোগ করতে পারেন। এর মধ্যে যেমন: আপনার অবস্থানের ভিত্তিতে কোন একটি ওয়েবসাইটের ভাষা স্বয়ংক্রিয়ভাবে পরিবর্তন, আপনার দেশে Available স্ট্রিমিং ইত্যাদি। অনেক ক্ষেত্রে স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম গুলো আইপি অ্যাড্রেস এর ভিত্তিতে তাদের পরিষেবা কোন দেশের জন্য শুধুমাত্র Available করতে পারে।

যদিও আপনার আইপি অ্যাড্রেস আপনার সুনির্দিষ্ট অবস্থান প্রদান করবে না, কিন্তু তবুও আপনার আইপি অ্যাড্রেস অনুসরণ করে এর খুব কাছাকাছি যাওয়া যেতে পারে। আপনার একটি IP ঠিকানা আপনার শহর, টিউনাল কোড, আপনার আইএসপি ইত্যাদি শনাক্ত করা যেতে পারে। তবে আপনি যদি চান যে, আপনি বর্তমানে কোথায় আছেন সেটি অন্য কেউ জানুক, তাহলে আপনি ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক বা ভিপিএন ব্যবহার করতে পারেন। আপনি আপনার অবস্থান বা আপনার IP ঠিকানা লুকানোর জন্য VPN ব্যবহার করার কথা বিবেচনা করতে পারেন।

শেষ কথা

বন্ধুরা, এই ছিল মূলত IP address বা Internet Protocol Address নিয়ে আজকের এই আর্টিকেল। আশা করছি আপনারা IP Address কি, এটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদিও একটি ব্লগে আইপি অ্যাড্রেস এর সমস্ত বিবরণ দেওয়া সম্ভব নয়। কেননা, একটি IP address-এর অনেকগুলো পার্ট রয়েছে এবং এগুলো অনেক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। ধন্যবাদ আসসালামু আলাইকুম।



Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *